আগামী কাল থেকে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা

 

ব্যবসায়ীদের দাবির মুখে আগামী শুক্রবার থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে শপিংমলগুলোতে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি না মানা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

উপসচিব মো. রেজাউল ইসলামের স্বাক্ষরিত এই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, শুক্রবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ৮ ঘণ্টা দোকানপাট ও বিপণিবিতান খোলা রাখা যাবে। এ ছাড়া করোনার টিকা কার্যক্রমও যথারীতি চলবে।

এর আগে গণপরিবহন বন্ধ করে দেওয়ার দুদিন পর অফিসগামী মানুষের কথা বিবেচনা করে সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত গণপরিবহন চালুর ঘোষণা দেয় সরকার।

তবে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির ক্রমাগত অবনতি হওয়ায় ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত শপিংমল বন্ধের ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছিল।

এদিকে, করোনার সংক্রমণ রোধে ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করা হলে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মার্কেট খোলার দাবিতে আন্দোলন করে আসছিলেন ব্যবসায়ীরা।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছিল, এ সময়ে দোকান, পাইকারি ও খুচরা পণ্য অনলাইনের মাধ্যমে কেনাবেচা করতে পারবে। সেক্ষেত্রে অবশ্যই সর্বাবস্থায় কর্মচারীদের মধ্যে আবশ্যিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং কোনো ক্রেতা সশরীরে দোকানে যেতে পারবেন না। সব গণপরিবহন (সড়ক, নৌ, রেল ও অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে। তবে পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা, জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এই আদেশ প্রযোজ্য হবে না। এ ছাড়া, বিদেশগামী ও বিদেশফেরত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে না।

 

আপনার মতামত প্রদান করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য