সিলেট  সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ১০দিনব্যাপী কর্মসূচির সমাপ্তি

মুজিব জন্মশতবর্ষ ও ২৬ শে মার্চ মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সিলেট সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের গৃহিত ১০ দিনের কর্মসূচির সমাপনী দিনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (২৬ মার্চ) বাদ মাগরিব থেকে তেমুখিস্থ ‘মুজিব শতবর্ষে ও সুবর্ণ জয়ন্তী বাংলাদেশ’ শীর্ষক অস্থায়ী মে সিলেট সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এ সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
সিলেট সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. নিজাম উদ্দিন চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে, সিলেট জেলা যুবলীগের সাবেক সহ-সভাপতি জুনায়েদ খোরাসানী ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এইচএমএ মালিক ইমনের যৌথ পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট নূরে আলম সিরাজী, জেলা পরিষদ সদস্য মোহাম্মদ শাহনূর, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মখলিছুর রহমান, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আমির উদ্দিন, মনোয়ার ইবনে রহমান, মোগলগাঁও ইউপির চেয়ারম্যান হিরণ মিয়া, সাবেক চেয়ারম্যান শামসুল ইসলাম টুনু, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট মহানগরের সহ-সভাপতি নজির আহমদ আজাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক মন্ডলীর সাবেক সদস্য আব্দুল হক, ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম খান, ফজলুল করিম ফুল মিয়া, আনোয়ারুল হক, শাহজাহান আহমদ, আবুল কালাম আজাদ, মাস্টার আব্দুল মালিক মামুন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আছন মিয়া, মনির উদ্দিন মেম্বার, বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী পরিবার জেদ্দা সৌদি আরবের সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম মুন্সি, বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের মধ্যে খাদিমনগর সভাপতি মো. তেরা মিয়া, জালালাবাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মানিক মেম্বার, আশ্রব আলী, মুহিত আলম শফিক, টুকের বাজারের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আফসা মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুকিত, হাটখোলার সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সহ-সভাপতি খুর্শিদ আলী, দিলবর আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মখলিছুুর রহমান, জালালাবাদের গেদন মিয়া মেম্বার, গিয়াস উদ্দিন মেম্বার, আমির আহমদ মোস্তফা, আফতাব হোসেন সিরাজী, উস্তার আলী, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি ফারুক আহমদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোস্তফা উল্লাহ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মোহাম্মাদ শাহজাহান, যুগ্ম আহ্বায়ক প্রভাষক সেলিম আহমেদ, শাহজাহান কবির, উপজেলা যুবলীগ নেতা দুলাল আহমদ, নুর আহমদ, মোয়াজ্জিন হোসেন, শামীম আহমদ, কুতুব উদ্দিন, বিরাম উদ্দিন, রায়সুল হক, আনসার আলী, আমিনুর রশিদ, তাঁতী লীগ নেতা আবুল কাহের, মৎস্যলীগ নেতা আবু বকর, জুনেদ সরকার, আব্দুল বাছিত, সদর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সদস্য ময়না মিয়া, নুর আহমদ, আবু বকর, আব্দুর রব, রিজু চৌধুরী, কামরান আহমদ, আব্দুস সালাম রিজভী, শাহ খুররম ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি ছাদিকুর রহমান ছাদিক, ছাত্রলীগ নেতা জামাল আহমদ, আবুল কাশেম, শামীম আহমদ, নুরুল আমিন, নুরুল আমিন শাওন, সাজন তালুকদার, রুম্মান আহমদ, আজহারুল ইসলাম আদর প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে মো. নিজাম উদ্দিন বলেন- বঙ্গবন্ধু আর বাংলাদেশ একই সূত্রে গাঁথা। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। তিনি পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙ্গে বাঙালি জাতিকে স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র ও লাল-সবুজের একটি পতাকা উপহার দিয়েছেন। তিনি বাংলাদেশকে স্বপ্নের সোনার বাংলা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার কাজে যখন নিয়োজিত ছিলেন, তখন পাকিস্তানি দূসররা তাঁকে নির্মমভাবে হত্যা করে। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি জননেত্রী শেখ হাসিনার সুদৃঢ় নেতৃত্বের কারণে তিনি আজ বাংলাদেশকে একটি উন্নয়নশীল দেশে রুপান্তরিত করেছেন। তাঁর হাতকে শক্তিশালী করতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। তিনি ১০ দিনের প্রোগ্রাম সফলভাবে সমাপ্ত করায় দলীয় নেতাকর্মীসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।
আলোচনা সভা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন সিলেটের স্থানীয় শিল্পিবৃন্দ।

 

আপনার মতামত প্রদান করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য