কোন গদি চাই না, ঈমানের প্রশ্নে কারও সঙ্গে আপস করতে পারি না :আল্লামা মামুনুল হক

বাংলাদেশ হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হক বলেছেন, কোন ব্যক্তির বিরুদ্ধে অবমাননা বা ব্যঙ্গাত্মক করলে এর বিচার হয়, কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যিনি দু’জাহানের সর্দার হযরত মুহম্মদ (সা:) তাঁর বিরুদ্ধে ব্যঙ্গাত্মককারীদের বিচার করা হয় না। মনে রাখুন, আমরা কোন গদি চাই না, কিন্তু ঈমানের ক্ষেত্রে কারও সাথে আপস করতে পারি না। হযরত বিশ্বনবী মুহম্মদ ( সা:)কে যাতে করে কোন ব্যক্তি ব্যঙ্গাত্মক না করতে পারে সে ক্ষেত্রে মুসলমান রাষ্ট্র প্রধানের দায়িত্ব হচ্ছে যথাযথ আইনের মাধ্যমে সেটা নিশ্চিত করা। সে ক্ষেত্রে রাষ্ট্র ব্যর্থ। হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) বিকাল ৪টায় সর্বস্তরের উলামায়ে কেরামের উদ্যোগে এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে খতমে নবুওয়তের মহা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, কাদিয়ানীরা মুসলমান নয় তারা কাফের। তারা রাষ্ট্রে বসবাস করুক তাতে আমাদের কোন আপত্তি নেই। কিন্তু মুসলমান হিসেবে নয় কাদিয়ানী হিসেবে। কোন মুসলমান গোলাম আহমদ কাদিয়ানীকে নবী মানলে সেও কাফের। নবীর ইজ্জতের নিরাপত্তা দিন। অন্যথায় এমন দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে যাতে সরকার বাধ্য হয় কাদিয়ানীদের কাফের হিসেবে সংসদে আইন পাশ করতে। মাওলানা আব্দুল বাছিত আজদ এর সভাপতিত্বে ও মাওলানা আব্দুল জলিল ইউসূফীর সঞ্চালণায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আল্লামা নুরুল ইসলাম ওলিপুরী, শায়খুল হাদীস আল্লামা আব্দুর রব ইউসূফী, শায়খুল হাদীস ফজলুর রহমান খান, আল্লামা শায়খ মখলিছুর রহমান, শায়খুল হাদীস তাফহীমুল হক, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ বশির আহমদ ও বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক মুফতি কাজী আতাউর রহমান প্রমুখ।
মহা সম্মেলনে প্রায় অর্ধলাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান অংশ গ্রহণ করেছেন।

 

 

আপনার মতামত প্রদান করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য