৩০ মার্চ খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, থাকছে যেসব শর্ত

 

দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ হঠাৎ করে বাড়তে শুরু করলেও আগামী ৩০ মার্চই সাধারণ স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি পর্যায়ের সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে।

গেল ২৭ ফেব্রুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে গতকার রবিবার (১৪ মার্চ) সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের সমন্বয় শাখা থেকে উপসচিব মোহাম্মদ আব্দুল আওয়াল স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

নির্দেশনারগুলোর মধ্যে রয়েছে-
স্বাস্থ্য ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় সমন্বিতভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক-কর্মচারীদের টিকা দেয়ার বিষয়টি আগামী ৩০ মার্চের আগেই সম্পন্ন করতে হবে।

কোনও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংস্কার অথবা মেরামতের প্রয়োজন হলে তা ৩০ মার্চের আগে সম্পন্ন করতে হবে।

এ বিষয়ে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে গণপূর্ত অধিদফতর সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সংস্কার অথবা মেরামতের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

মাঠ পর্যায়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর ও পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের কর্মকর্তারা পর্যায়ক্রমে প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করবেন এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলার বিষয়টি মনিটরিং করবেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ৬০ কর্মদিবস ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ৮০ কর্মদিবস পাঠদান শেষে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা নেয়া হবে।

গেল ২৭ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিপরিষদের সম্মেলন কক্ষে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে আগামী ৩০ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ঘোষণা দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

তিনি জানান, প্রথম দিকে সপ্তাহে ৬ দিন ক্লাস করবে পঞ্চম, দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা। নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে দুদিন ক্লাস করবে। অন্যান্য শ্রেণির শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে একদিন ক্লাসে এসে পড়া নিয়ে বাড়ি যাবে।

 

 

আপনার মতামত প্রদান করুন
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য