কাউন্সিলর হিসেবে রিপন আহমদকে পূনরায় এলাকাবাসী  সমর্থন

জকিগঞ্জ পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের অসমাপ্ত উন্নয়নগুলো বাস্তাবায়ন করতে চাই।

নির্বাচিনী এলাকার সম্মানিত ভোটার ও নাগরিক দের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস রেখে পূনরায় জকিগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার (পৌরসভা নির্বাচন ২০২০) জনাব সাদমান সাকিব  কাছে থেকে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করতে নির্বাচিনী মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করলাম ২০ডিসেম্বর।

এবারের জকিগঞ্জ পৌর নির্বাচনে পৌরসভা বিভিন্ন ওয়ার্ডে নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে প্রকাশ্যে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান দিচ্ছেন। নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটারদের মধ্যেও দেখা দিয়েছে উৎসাহ-উদ্দীপনা। জকিগঞ্জ পৌরসভা ৩ নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত বর্তমান কাউন্সিলর রিপন আহমদ সদা হাস্যজ্জল,পরোপকারী একজন মানুষ।জনপ্রতিনিধি হয়ে ইতিমধ্যে এলাকাবাসীর কাছে আস্থার প্রতিক হিসেবে পরিচিত লাভ করেছেন এই মানুষটি। আদর্শ ও ন্যায় নীতির মধ্যে থেকে এলাকার মানুষের সুখেদুঃখে পাশে থাকাই এ মানুষটির লক্ষ্য। কোন কিছুর লোভ লালসা আর হিংসা তাকে আক্রমণ করতে পারেনি। এসব কারণেই এলাকার অনেকেই প্রশংসা করেন তার। স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছেও তিনি খুবই প্রিয়।

জকিগঞ্জ উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থান হচ্ছে পৌর এলাকার ৩ নং ওয়ার্ড।

 

এখানে রয়েছে উপজেলা পরিসদ ভবন, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, জকিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পৌরসভা কার্যালয়, জকিগঞ্জ বাজারের বেশিরভাগ অংশ।
এই ওয়ার্ডে, জকিগঞ্জ ফায়ার স্টেশন ও একটি বিজিবি ক্যাম্প রয়েছে।
এবং পৌরসভার অন্যান্য ওয়ার্ডের চেয়ে ভোটার সংখ্যা বেশি এই ওয়ার্ডে।

বিগত ২০১৫ সালের পৌরসভা নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডে বিপুল ভোট পেয়ে এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে চমক দেখান তিনি।নিজ ওয়ার্ড ছাড়াও গোটা পৌর এলাকার সাধারন মানুষের কাছে রয়েছে তার জনপ্রিয়তা।

বিশেষ করে কাউন্সিলর নির্বাচিত গত ৫ বছরে দিনরাত সাধারন মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোজঁ খবর নেওয়ার কারনে ৩নং ওয়ার্ডের সাধারন ও অসহায়,গরিব ভোটাররা পূনরায় নির্বাচিত করতে সেচ্ছায় তার পক্ষে দিনবর প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে।

আরো পড়ুন: জকিগঞ্জের হাজীগঞ্জ উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে নদীভাঙ্গন প্রতিরোধে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

এলাকার অধিকাংশ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানাগেছে- রিপন আহমদ দীর্ঘদিন ধরে এলাকার ধনী-গরিব সহ সর্বস্থরের মানুষের পাশে রয়েছেন। যে কোন প্রয়োজনে তার সহযোগীতা পাওয়া যায়।

ওয়ার্ডের একজন ভোটার এ প্রতিবেদকের কাছে জানিয়েছেন- আমরা কাউন্সিলর হিসেবে রিপন ভাইয়ের কাছ থেকে যে সুযোগ সুবিধা পেয়েছি, তা হয়তো অন্য কারো কাছ থেকে পাওয়া সম্বব নয়।
বেশ কয়েকজন ভোটার জানিয়েছেন- বর্তমান সময় জকিগঞ্জের অন্য যে কোন ওয়ার্ডের তুলনায় ৩ নং ওয়ার্ডের অবস্থা কয়েকগুন ভালো।করোনাকালীন সময়ে তিনি যে সেবা সেটি এলাকার জনগন ভুলবেনা।

কাউন্সিলর রিপন আহমদের সাথে কথা বললে তিনি বলেন- আমি আমার ৩ নং ওয়ার্ডবাসীর প্রতি সারাজীবন কৃতজ্ঞ, কারন তাদের দোয়া ও ভালোবাসায় আমি কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছি। ‘ওয়ার্ডের মানুষের সেবা নিশ্চিত করতে আমার সাধ্য অনুযায়ী সর্বাত্মক চেষ্টা করেছি। সবাইকে সমান চোখে দেখেছি। আগামীতে এলাকায় সম্প্রীতি বজায় রাখা সহ উন্নয়নে অগ্রনী ভুমিকা পালন করবেন বলে তিনি জানান।
তিনি বলেন- আমি আপনাদের দোয়ায় আগামীতে পূনরায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডের কিছু অসমাপ্ত কাজ রয়েছে,সেগুলো বাস্তবায়ন করব ইনশাআল্লাহ।
আপনাদের কাছে থেকে আপনাদের সেবা করার প্রত্যায় নিয়ে আসন্ন পৌর নির্বাচনে আমার নিজ ওয়ার্ড তথা পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে নির্বাচনি মাঠে নেমেছি।সকলের দোয়া ও সহযোগীতা চান তিনি।

 

 

আপনার মতামত প্রদান করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য