প্রসূতির মৃত্যুতে স্বজনদের হামলায় চিকিৎসকের মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক:  ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগে তার স্বজনদের হামলায় খুলনায় এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল ১৬ জুন, মঙ্গলবার রাতে শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ডা. মো. আব্দুর রকিব খান (৬০) নামের ওই চিকিৎসক। আগেরদিন সোমবার রাতে তার ওপর হামলা হয়।

জানা গেছে, গত ১৪ জুন, রবিবার রাতে নগরীর গল্লামারী এলাকায় অবস্থিত রাইসা ক্লিনিকে সিজারের মাধ্যমে সন্তান প্রসব করেন বাটিয়াঘাটা উপজেলার শিউলি বেগম নামের এক গৃহবধূ। কিন্তু তার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় সোমবার তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় ঢাকায় নেয়ার পথেই তিনি মারা যান।

এই ঘটনার পর রোগীর স্বজনরা ওইদিনই রাত ৯টার দিকে চিকিৎসক ডা. রকিব খানকে কৌশলে ডেকে ক্লিনিকের সামনে বের করেন। ভুল চিকিৎসায় শিউলির মৃত্যু হয়েছে এমন অভিযোগ তুলে তার ওপর রোগীর স্বজনরা হামলা চালায়। তাদের বেধড়ক মারধোরে ডা. রাকিব মাথায় আঘাত পান। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মারা যান তিনি।

এ বিষয়ে আবু নাসের হাসপাতালের পরিচালক ডা. বিধান চন্দ্র গোস্বামী বলেন, ‘মাথায় আঘাতের কারণে ডা. রাকিবের মস্তিস্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এ কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।’

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম বাহার বুলবুল এ সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ডা. রকিবের মৃত্যুর খবর শুনে ঘটনাস্থল রাইসা ক্লিনিক পরিদর্শন করেছি।’ ডা. রকিবের স্বজনরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

বিএমএ খুলনা শাখার আজীবন সদস্য ডা. মো. আব্দুর রকিব খান বাগেরহাট ম্যাটস-এর অধ্যক্ষ ছিলেন। তিনি নিজ মালিকানাধীন রাইসা ক্লিনিকেও রোগী দেখতেন।

এদিকে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) খুলনা শাখা। সেই সাথে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জড়িতদের চিহ্নিত করে দ্রুত শাস্তির দাবী করেছেন।

বিথী

আপনার মতামত প্রদান করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য