জকিগঞ্জে সরকারি রাস্তা কেটে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগ

 

নিজস্ব প্রতিনিধি :: জকিগঞ্জে সরকারি অর্থায়নে নির্মাণাধীন রাস্তা কেটে নালা ভরাট ও পানি নিষ্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জকিগঞ্জ-সিলেট সড়ক ও জনপথের রাস্তার ফলাহাট গ্রাম থেকে কোচারখালের উৎপত্তি হয়ে পাঠানচকের ভিতর দিয়ে হাইল ইসলামপুর, রহিমখারচক, খলাছড়া ইউনিয়নের মজুমদারী হাওরের উত্তর-পশ্চিমে প্রলম্বিতভাবে মিলিত হয়েছে।

চলতি বছরে জকিগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড সদস্য আজিজুর রহমান কালন ইউনিয়ন পরিষদের ইজিপিপি প্রকল্পের অর্থায়নে খালের পানি নিষ্কাশন ও রাস্তা পুনঃনির্মাণের জন্য ২২০০ ফুট রাস্তা ও নালা উন্নয়ন করেন। কাজ শেষ হওয়ার প্রায় ২ মাস পর রহিমখারচক গ্রামের আব্দুশ শাকুরের ছেলে আলিম উদ্দিন (৩৫), কুটু মিয়ার ছেলে আব্দুশ শাকুর (৬০) ও হাইল ইসলামপুর গ্রামের মৃত মঈন উদ্দিনের ছেলে ফয়েজ আহমদ (৫০) তাদের ভূমির সামনের নির্মাণাধীন রাস্তা কেটে কোচারখাল ভরাট করতে শুরু করেন। এ ঘটনায় প্রকল্পের চেয়ারম্যান জকিগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সদস্য আজিজুর রহমান বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, বিবাদীরা প্রকল্পের কাজ চলাকালীন আপত্তি না দিয়ে কাজ শেষ হওয়ার ২ মাস পর রাস্তা ও নালা কেটে ভরাট করে। এলাকার লোকজন নিষেধ দিলেও তারা বাঁধা না মেনে রাস্তা কেটে খাল ভরাট করে পানি নিষ্কাশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিসহ প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করেছে। কোচারখালের নালা বন্ধ হওয়ার কারণে বর্ষা মৌসুমে পানি নিষ্কাশনে প্রতিবন্ধিকতা সৃষ্টি হলে রারাই, মুমিনপুর, ফলাহাট, হাজারীচক, ইলাবাজ, পাঠানচক, পূর্ব হাইল ইসলামপুর, পূর্ব রহিমখারচকসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। পানি নিষ্কাশনের জন্য খাল পুনঃনির্মাণ ও জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে জোর দাবী জানান।

আপনার মতামত প্রদান করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের অন্যান্য